নোটিস :
স্বাগতম “বাংলারকবি ডটকম” জনপ্রিয় ওয়েব সাইটে। আজই আপনার প্রিয় কবিতা-গল্প প্রকাশ করুন আমাদের এই সাইটে। ধন্যবাদ!! প্রয়োজনে-০১৭২৫-১৩৪৪৪৬
কষ্টের নাম জীবন

কষ্টের নাম জীবন

কষ্টের নাম জীবন
মোঃ বুলবুল হোসেন
তারিখঃ ৩১-০৮-২০২১ ইং

বাবা মার সংসারে খোকনের ভালোভাবে দিন যাচ্ছে। খোকনের বয়স সাত বছর কোনো রকম বুঝতে শিখেছে । বাবা অসুস্থ তাদের সংসার কোনরকম চলে, বাবা ছোট খাটো একটা ব্যবসা করে।তা দিয়ে যা আয় হয়, সংসার কোনরকম চলে যায়। দিনের শেষে যখন বাবা ঘরে ফিরে তার সাধ্য অনুযায়ী খোকনের জন্য কিছু কিনে নিয়ে আসে‌। খোকন তাতে খুশি থাকেন। প্রতিদিনের মত আজও সকালে ঘুম থেকে উঠে বাবা গোসল সেরে খাওয়া-দাওয়া করে। বাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। যাওয়ার সময় খোকন কে বলে বাবা তোমার জন্য কি আনবো খোকন বলে বাবা তোমার যা পছন্দ তাই নিয়ে এসে। বাবা বাজারের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়ে দেয় । সারাদিন বাজারে থেকেই সন্ধ্যার যখন বাড়ির দিকে রওনা দিবে। খোকনের জন্য তার পছন্দ অনুযায়ী কিছু কিনে নেয়। খোকনের বাবা রাস্তা দিয়ে হেঁটে আসার সময় কয়েকজন ছিনতাই কারীর হাতে পরে। ব্যবসার মূলধন যা টাকা ছিল সব ছিনতাইকারী নিয়ে নেয়। এদিকে ধারদেনা করে একটা ব্যবসা দাঁড় করিয়েছিলো খোকনের বাবা। তাও আবার আরেক জনের হাতে চলে গেল। খোকনের বাবা বাড়িতে এসে আফসোস করতে করতে অজ্ঞান হয়ে যায়। খোকনের মা ও কান্নাকাটি করে। মায়ের কান্না দেখে খোকন কাঁদতে থাকে। পাড়ার সকলে এসে খোকনের বাবার মাথায় পানি ঢেলে সুস্থ করে এবং সবাই সান্তনা দিতে থাকে। কি আর হবে তুমি আবার চেষ্টা করো।

এদিকে রাত গভীর হতে থাকে। পাড়ার লোকজন যার যার ঘরে চলে যায়। খোকনের বাবা-মা রাত্রিতে বসে ভাবে। এতগুলো টাকা মানুষের কাছ থেকে ধার করে নেওয়া । এগুলো কীভাবে দিবে চিন্তা করতে থাকে। কিছু জমি আছে এগুলো যদি বিক্রি করে দেয় তাহলে খোকনের ভবিষ্যৎ কি হবে । এই ভেবে তারা সারা রাত দু চোখের পাতা এক করতে পারে নাই। কিছু দিন যেতেই পাওনাদার এসে খোকনের বাবাকে চাপ দিতে থাকে। এদিকে ঘরে খাওয়ার মতো কিছু নেই চুলাও জ্বলছে না কি করবে ভেবে পাচ্ছেনা। মানুষের কথা শুনতে শুনতে আর ভালো লাগেনা। খিদের কষ্টে খোকন কান্নাকাটি করতে থাকে। এগুলো সহ্য না করতে পেয়ে। খোকনের বাবা চিন্তায় করে, শেষ সম্বলটুকু একটু জমি বিক্রি করে দেই, কি হবে খোকনের । মা বলে কি আর হবে বিক্রি করে মানুষের দেনা শোধ করে যা থাকে। তাই দিয়ে আবার ব্যবসা শুরু করো। আল্লাহ আমাদের কে রহমত করবেন। খোকনের বাবা বলে ঠিক বলেছ আমাদের তাই করা উচিত।

জমিটুকু বিক্রি করে ফেলে। খোকনের বাবা পাওনাদারের টাকা শোধ করে দেয়। এবং যা অবশিষ্ট থাকে। তাই দিয়ে আবার নতুন ব্যবসা শুরু করে। এমনকি কিছুদিনের মধ্যে সংসারটা সচ্ছল হতে থাকে। আবার আগের মতোই ভালোভাবে চলতে থাকে খোকনের সংসার। হঠাৎ একদিন খোকনের বাবা বুকে প্রচণ্ড ব্যথা অনুভব করে। ওষুধ খাওয়ানো হয়, তাতেও কাজ হয় না। বাজারে নিয়ে যাইতে প্রায় আধা ঘন্টা সময় লাগে। কয়েকজন লোক ধরে খোকনের বাবাকে বাজারে নিয়ে যায়। খোকনের বাবাকে নিয়ে একটা ফার্মেসিতে বসানো হল । কিছুক্ষণ পরেই খোকনের বাবা মাটিতে ঢলে পরে। ফার্মেসি ডাক্তার বলে উনি আর বেঁচে নেই। না ফেরার দেশে চলে গেছে। খোকনের মা অনেক কান্নাকাটি করতে থাকে। কি হবে এদের সংসারে মানুষ আফসোস করতে থাকে । সবাই বলতে থাকে আয় করার মতো এই সংসারে এক জন ছিলো সে চলে গেছে।

কিছুদিন পরে খোকন ভাবে মা তুমি আর কেঁদোনা এভাবে প্রতিদিন কাঁদলে আমার ভালো লাগেনা। আমি কাজ করবো খোকনের মা বলে তুই কি কাজ করবি। তোর কি কাজ করার বয়স হয়েছে। খোকন মাকে বলে আমি বাজারে যাব বাজারে গিয়ে যা পাই তাই করবো। সপ্তাহে দুই দিন বাজার হয় খোকন দের গ্রামের পাশে। সেখানে ঢাকা থেকে অনেক লোক কাঁচামালের কেনার জন্য আসে । কাঁচামাল গোলো খোকন বস্তায় ভরে দেয়। মুখ সেলাই করে । প্রতি বস্তা ভর্তি করে দিলে দশ টাকা করে দেয়। এরকম করে প্রতি হাটে তিনশত টাকা রোজগার করে। প্রথম যেদিন খোকনের রোজগারের টাকা দিয়ে বাজার করে নিয়ে যায়। মা দেখে খোকনকে জড়িয়ে ধরে অনেক কান্নাকাটি করে বলতে থাকে। বাবা এই বয়সে তোর স্কুলে যাওয়ার কথা আর তুই টাকা রোজগারের জন্য নেমে পড়ছো। তোর বাবা থাকলে তোর এগুলা করতে হতো না। এই বলে কাঁদতে থাকে খোকনের মা। এরপর থেকে প্রতি হাটে খোকন যে টাকা রোজগার করে। তাই দিয়ে তাদের সংসার ভালোই চলে যায়। এভাবে খোকন সংসার চলতে থাকে। খোকনের সংসারে শান্তি চলে আসে।

লেখক প্রোফাইল:

BULBUL HOSEN
BULBUL HOSEN
আমি শৈশব থেকে বাংলাদেশের ঢাকা বিভাগের টাংগাইল জেলার কালিহাতী থানার ঘুনিপাড়া গ্রামে সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে বেড়ে উঠি। পিতার নামঃ- মোঃ ফ্জলুল হক। মাতাঃ- মোসাঃ মনোয়ারা বেগম। Mail:-bulbulshake36@gmail.com
শেয়ার করুন :


3 responses to “কষ্টের নাম জীবন”

  1. דירות דיסקרטיות בחיפהאתר למבוגרים הכי טוב בישראל כנסו עכשיו

  2. Thanks for the good article, I hope you continue to work as well.

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© কপিরাইট© ২০২১  বাংলারকবি.কম
Desing & Developed BY LIONIT.COM.BD